উদ্যোক্তাদের পণ্যের ডিজিটাল অডিও-ভিজুয়াল কনটেন্ট তৈরি বিষয়ক ওয়েবিনার কর্মশালার আয়োজন

ই-কমার্স ই-লার্নিং শিক্ষা

দীপংকর দীপন

বি’ইয়া আয়োজিত ধারাবাহিক ওয়েবিনার সেশনে গত তারিখে ওয়েবিনার সেশনে অংশগ্রহণ করে তরুণ উদ্যোক্তা
মাহাফুজ জুয়েল বলেন, আমি নিজেই নিজের পণ্যের ছবি তুলতাম, ভিডিও করে ফেসবুকে দিতাম। কিন্তু দীপংকর দীপন
দাদার এই কর্মশালায় অংশগ্রহণ করার পর জেনেছি কত ছোট ছোট বিষয় লক্ষ্য না করার ফলে আমার ছবি ও
ভিডিওর গুণগত মান সম্পন্ন করে তুলতে পারিনি। এই অনলাইন কর্মশালা থেকে আমি অনেক কিছু জেনেছি, যা পরবর্তী
সময়ে আমার পণ্যের ভিডিও প্রমোশনে কাজে লাগবে।

গত ও আগষ্টে বাংলাদেশ ইয়ূথ এন্টারপ্রাইজ অ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টার আয়োজিতঅিডিও-ভিডিও কনটেন্ট
তৈরি ও ডিজিটাল প্রমোশন বিষয়ক অনলাইন ওয়েবিনার সেশন পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশের সুনামধন্য চলচিত্র
পরিচালক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব দীপংকর দীপন। অনলাইনভিত্তিক সেশনগুলো প্রতিটি গড়ে ২ ঘন্টা ব্যাপ্তিতে ৩ টি
ওয়েবিনারে প্রায় ৭৫ জন উদ্যোক্তা দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে অংশগ্রহণ করেন। উক্ত ওয়েবিনারে
তরুণ উধ্যোক্তা কিভাবে অতি সহজে কম ব্যয় করে নিজেরাই নিজেদের পণ্যের অডিও-ভিডিও ধারণ করতে আলোর
ব্যবহার, কালার, পোষাক, সময়, এঙ্গেল, পণ্যের লক্ষ্যভূক্ত ক্রেতা, রুচিশীল বিজ্ঞাপণ তৈরি করতে পারে সে
বিষয়গুলো দীপংকর দীপন অত্যন্ত সহজ সাবলিলভাবে উপস্থাপন করেন। প্রতিটি সেশন অনলাইনে হলেও এগুলো
ছিলো অভিজ্ঞতাভিত্তিক, আলোচনাধর্মী, এবং ঘরোয়া আমেজের মত। উদ্যোক্তা ড চিং চিং বলেন, এত সুন্তর করে
সেশন গুলো হচ্ছিল যে বুঝতেই পারিনি এটা অনলাইনে হচ্ছে এবং ২ ঘন্টা কেটে গেছে। আমি জেনেছি বাসাতে কিভাবে
আলো, কালারের সমন্বয়ে আমার স্মার্ট ফোন দিয়েই গুণগতমানসম্পন্ন ভিডিওতৈরি করা যায়। সথ্যিই আমি খুবই
উপকৃত হয়েছি।

দীপংকর দীপন বলেন, উদ্যোক্তাদের জন্য এ ধরণের সেশন অনলাইনে এই প্রথম নিয়েছি। আমি বিশ্বাস করি, সকলের
মধ্যেই দক্ষতা আছে একটা বিষয়কে ইতিবাচক করে দেখার মানসিকতা আছে। আর এত যদি শেখার আগহটা যোগহয়
তাহলে যেকোন বিষয় সহজ হয়ে যায়। আমি বি’ইয়া’র তরুণ উধ্যোক্তাদের মধ্যে সেই বিষয়টি অনুভব করতে পেরেছি। যে
উদ্যোক্তা একটি কাপড়ে কারুকাজ করছে, যিনি একটি সুন্দর কেক বানাচ্ছেন, যিনি এজন মানুষকে সাজিয়ে দিচ্ছেন
তার মধ্যে শিল্প আছে, তার মধ্যে উদ্যোক্তার বাইরেও অন্য দক্ষতা আছে। এটাকেই সহজে জাগিয়ে তুলতে চেয়েছি
কিছূ উদাহরণ, চলচিত্র নিমার্নর অভিজ্ঞতা, লেখাপড়া, স্টাডি দিয়ে। আমি খুবই আনন্দিত যে উদ্যোক্তারা আমার
কাছে অডিও-ভিডিও এবং ডিজিটাল যোগাযোগের ক্ষেত্রে করণীয় বিষয়ে জানাতে পেরেছি। আমি বি’ইয়াকে ধন্যবাদ দেই
আমাকে উদ্যোক্তাদেরকে এ বিষয়ে শেখানোর সুযোগ করে দেওয়ার জন্য।

উল্লেখ্য, Google.org ও Youth Business International এর সহায়তায় বি’ইয়া ২০২০ সালের মে মাস থেকে
Google.org ও ওয়াইবিআই’র সহযোগিতায় রেপিড রেসপন্স এন্ড রিকোভারী প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশের প্রায়
৫০০ তরুণ উদ্যোক্তাকে কোভিড-১৯ মোকাবেলা করে তাদের উদ্যোগকে অনলাইনে পরিচালনার লক্ষ্যে বিভিন্ন
কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ফলে, গত মে মাস থেকে গ্রামীণ ও শহর এলাকার কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারীর প্রায় ২০০
জন উদ্যোক্তা অনলাইনে ই-কমার্স এন্ড ডিজিটাল মার্কেটিং প্রশিক্ষণসহ অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন ওয়েবিনার
সেশনে অংশগ্রহণ করেছে।